চুক্তি সাক্ষর করলো চীন ও এমেরিকা বাণিজ্য যুদ্ধলুপ্তে:

চুক্তি সই করলো, চীনের নেত্রীবৃন্দরা এটিকে  উইন উইন বলে আখ্যা দিচ্ছেন, অপরদিকে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলছেন মার্কিন অর্থনীতিতে পরিবর্তন ঘটাবে এই চুক্তি।

0
চুক্তি সাক্ষর করলো চীন ও এমেরিকা বাণিজ্য যুদ্ধলুপ্তে/thepolicytimes.com
593 Views

দুই বছরের বাণিজ্য বিরোধে চীন ও আমেরিকার মধ্যে পরস্পরকে জর্জরিত করা, তীব্র ভাবে একে অপরকে যে কোনো কাজে উত্তেজিত করা, যুদ্ধবিরতির সুর নরম ভাবে সবসময় লেগেই থাকতো।

শেষ পর্যায় এই যুদ্ধকে অবসান করতে দুই দেশের নেতা মিলে একটি চুক্তি সই করলো, চীনের নেত্রীবৃন্দরা এটিকে  উইন উইন বলে আখ্যা দিচ্ছেন, অপরদিকে এমেরিকান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলছেন মার্কিন অর্থনীতিতে পরিবর্তন ঘটাবে এই চুক্তি। 

সামনে ফলস্বরূপ যাই হোক না কেন, যে বাণিজ্য যুদ্ধ চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে চলছিল তা বিলুপ্তে অর্থনীতি উন্নতির নতুন রূপ পেলো নিসঃন্দেহে। 

বাণিজ্য খামতি কমেছে:

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম সমপরিমাণ স্কোর বোর্ডের নজরে দেখেছেন এবং তিনি বলেন চীনের সাথে যে শুল্ক যুদ্ধ তা আমাদের দেশের বাণিজ্যিক যে ঘাটতি সেটা দ্রুত কমাতে বা মেটাতে পারে। 

আর হ্যাঁ সেটাই হয়েছে।

বাণিজ্যিক যুদ্ধ শুরু হওয়া মাত্রই দুই দেশেরই বাণিজ্যিক ঘাটতি অনেকটা খামতি হয়েছে। বর্তমানে যদিওবা বেশি আছে, কিন্তু যেভাবে বাণিজ্য যুদ্ধ আরম্ব হয়েছে তাতে অল্প সময়ের মধ্যে হ্রাস হবে ঘাটতি। চুক্তি সাক্ষর করলো চীন ও এমেরিকা বাণিজ্য যুদ্ধলুপ্তে/thepolicytimes.com

আগের বছর নভেম্বর অব্দি এক বছরে আগের বছরের তুলনায় ঘাটতি হ্রাস পেয়েছে  ছয় হাজার কোটি ডলার এবং বর্তমানে ঘাটতির পরিমাণ ছত্রিশ হাজার কোটি ডলার।

মার্কিনের কৃষিপণ্য আদান প্রদান কমেছে চিনে:

ডোনাল্ড ট্রাম্পের শুল্ক বেবস্থা হারের বৃদ্ধির ওপরে চীন ক্ষিপ্ত প্রতিক্রিয়া দেখায়, এবং ফলস্বরূপ ক্ষতিসাধনে পড়েছে মার্কিন কৃষকরা।কারণ চীনের কাছে যুক্তরাষ্ট্রের কৃষিজাত রপ্তানি ২.৫০০ হাজার কোটি ডলার থেকে নিচে নেমে বর্তমানে ৭০০ কোটি ডলারে। 

চীনা বিনিয়োগ হ্রাস:

চুক্তি সাক্ষর করলো চীন ও এমেরিকা বাণিজ্য যুদ্ধলুপ্তে/thepolicytimesযুক্তরাষ্ট্রের বিনিয়োগ চীনের সাথে বেশ স্থিতিশীল অবস্থায় ছিল। কিন্তু বাণিজ্য যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্রে চীন বিনিয়োগ অতিরিক্ত মাত্রায় হ্রাস পেয়েছে। আমেরিকান এন্টারপ্রাইজ ইন্সটিটিউট ও ওয়াশিংটনভিত্তিক থিঙ্কট্যাংকের হিসেব অনুযায়ী, চীনা কোম্পানির বিনিয়োগ যুক্তরাষ্ট্রে  ২০১৬ সালে ছিলো ৫.৪০০ কোটি ডলার এবং ২০১৮ সালে দাঁড়িয়েছে ৯০৭ কোটি ডলার। সর্বশেষে ২০১৯-এ প্রথম অর্ধেকে এটা ছিলো মাত্র আড়াইশ কোটি ডলার।

এছাড়াও এটির মূললক্ষ ছিল যুক্ত রাষ্ট্রের নীতি অনুযায়ী চীনের মুদ্রা নিয়ন্ত্রণ কে মজবুত করা। 

অর্থনীতির জন্যে চীন যুক্তরাষ্ট্র সহ পুরো বিশ্বে বড়ো ধাক্কা:

বাণিজ্য যুদ্ধকে যুক্তরাষ্ট্র একটি বড়ো কারণ হিসাবে প্রকাশ করছে, তাদের আশংকার প্রবৃদ্ধি প্রত্যাশার চেয়ে ৩ শতাংশ হ্রাস হবে।বড়ো বড়ো বিশ্লেষকরা জানাচ্ছেন এটির পুরো প্রভাব বুঝতে কমপক্ষে কয়েক বছর সময় লেগে যাবে।

বিশ্বব্যাংক বলছে তিন দশকের ইতিহাসে ২০২০ সালে দেশটির প্রবৃদ্ধি আগের বছরের তুলনায় ৬% কমে যাবে। এই দুটি বৃহৎ অর্থনৈতিক শক্তির মধ্যে যে বিবাদ বিলম্ব তাতে বিশ্বঅর্থনীতিও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। 

ইন্টারন্যাশনাল অর্থ তহবিলের মেনেজিং ডিরেক্টর ক্রিস্টালিনা জিওরগিয়েভা জানিয়েছে এই যুদ্ধ সবাইকে ক্ষতিসাধনে ফেলেছে। 

যুক্তরাষ্ট্র চীন ছাড়াও অন্যান্য বাণিজ্য অংশীদারদের সাথেও এই বাণিজ্য চুক্তিগুলো নিয়ে আলোচনা করেছেন। আইএমএফ জানিয়েছিল এইসব বাণিজ্য দ্বন্দ্বের কারণে ২০১৯ সালে প্রবৃদ্ধি প্রত্যাশা ৩% কমিয়েছিলো। 

 

চীনের সাথে যুক্তরাষ্ট্রের বিচ্ছিন্নতার লক্ষন:

বাণিজ্য চুক্তি হওয়া সত্ত্বেও ওয়াশিংটনের সাথে বেইজিং এর  মধ্যকার প্রযুক্তিগত ভাগাভাগির আশঙ্কা বাড়ছে।যুক্তরাষ্ট্র তালিকাভুক্ত করলো চীনের কয়েকটি টেলিকম কোম্পানিকে হুয়াওয়ে ও আরও অন্যান কয়েকটি। যার ফলে বেশকিছু যুক্তরাষ্ট্রের কোম্পানি তাদের সাথে ব্যবসা করতে পারছেনা। আবার এইধরণের কালো তালিকা  বেইজিংয়েও করেছে। 

মনে হচ্ছে আমেরিকাতে থাকা চীন কোম্পানি গুলিকে নিখুঁত পর্যবেক্ষনের আওতায় রাখবেন যুক্ত রাষ্ট্র।

নতুন চুক্তিতে চীন-মার্কিন:

  • যুক্তরাষ্ট্র থেকে আমদানি ও রপ্তানি বাড়িয়ে চীন ২০০ বিলিয়ন ডলারের উর্ধে নিয়ে পৌঁছাবে, যা ২০১৭ সালের সমপরিমান হবে। কৃষিপন্য আমদানির চাহিদা বাড়াবে ৩২ বিলিয়ন ডলার, শিল্পপন্য আমদানি করবে ৭৮ বিলিয়ন ডলার, ইলেকট্রিক আমদানি ৫২ বিলিয়ন ডলার এবং সব শেষে সেবাখাতে চীন আমদানি করবে ৩৮ বিলিয়ন ডলার।
  • নকল কে বিলুপ্ত করতে যথাযত পরিকল্পনা নিচ্ছে চীন।আর ট্রেড সিক্রেট চুরির মামলায় কোম্পানিগুলোর আইনগত ও নীতিগত ব্যবস্থা নেয়ার পদ্ধতি সহজতর করবে।
  • ২৫% পর্যন্ত শুল্ক আরোপ করবে চীন ৩৬০ বিলিয়ন প্রাপ্ত ডলার হতে।অপরপক্ষে চীন, ১০০ বিলিয়ন ডলার পর্যন্ত মার্কিন পণ্য আমদানিতে শুল্ক কাঠামো পুনঃবিন্যাস করবে

     

Summary
Article Name
চুক্তি সাক্ষর করলো চীন ও এমেরিকা বাণিজ্য যুদ্ধলুপ্তে:
Description
চুক্তি সই করলো, চীনের নেত্রীবৃন্দরা এটিকে  উইন উইন বলে আখ্যা দিচ্ছেন, অপরদিকে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলছেন মার্কিন অর্থনীতিতে পরিবর্তন ঘটাবে এই চুক্তি।
Author
Publisher Name
The Policy times
Publisher Logo