করোনা-ভাইরাসঃ চিনের বিরুদ্ধে ২০ ট্রিলিয়ন ডলারের অধিক ধার্য করে মামলা দায়ের করল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

ক্লেম্যান সহ বাকিঅভিযোক্তারা অভিযোগ করেছেন যে সমস্ত চীনা চিকিৎসক এবং গবেষকরা যারা করোনভাইরাস সম্পর্কে মতামত দিয়েছিলেন এবং একইসঙ্গে গোটা বিশ্বকে ‘বিপদের ঘণ্টা বাজিয়ে জানান দিতে চেয়েছিলেন’ তাদের এখন চুপ করিয়ে রাখা হয়েছে।

0

বিশ্বে করোনা-ভাইরাস-এর প্রকোপ বৃদ্ধিকে কেন্দ্র করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ২০ ট্রিলিয়ন ডলারের মামলা দায়ের করল চিনের বিরুদ্ধে। আমেরিকান আইনজীবী ল্যারি ক্লেম্যান ও তাঁর প্রতিরক্ষা দল  ‘ফ্রিডম ওয়াচ’ সহ টেক্সাস সংস্থা ‘বুজ ফটোস’, চীনা সরকার, চীনা সেনাবাহিনী, ‘উহান ইনস্টিটিউট অব ভাইরোলজি’, উহান ইনস্টিটিউট অফ ভাইরোলজি ডিরেক্টর শি ঝেংলি এবং চীনা সেনাবাহিনীর মেজর জেনারেল চেন ওয়েই-এর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন।

অভিযোক্তারা ২০ ট্রিলিয়ন ডলারের অধিক ধার্য করেছেন, যা চীনের জিডিপির চেয়েও অনেক বেশি। তাঁদের দাবি এই করোনোভাইরাসটি চীনা কর্তৃপক্ষের তৈরি করা একটি ‘বায়োলজিক্যাল ওয়েপন’। ল অ্যান্ড ক্রাইম উদ্ধৃত এই মামলায় উল্লেখ আছে, ‘যেহেতু চীন এই ধরনের অস্ত্র নিষিদ্ধ করার জন্য চুক্তির মাধ্যমে সম্মত হয়েছে, এই পদক্ষেপগুলি জনগণের ওপর চীন  সরকারের ক্রিয়াকলাপ হতে পারে না এবং এর সঙ্গে সঙ্গে মামলা থেকে আইনী দায়মুক্তির কোনও সম্ভাব্য দাবি সাপেক্ষে হতে পারে না’। আরও বলা হয়েছে, “পরীক্ষাগারের মধ্যে ভাইরাস বজায় রাখার উদ্দেশ্যটি ছিল “মার্কিন নাগরিক এবং চীনের শত্রু  দেশগুলিকে ধ্বংস করা”।

সূত্র মারফত জানা গেছে যে, লাস ভেগাস শ্যুটিং গণহত্যার শিকারদের ওপর যে আইনজীবী প্রতিনিধি হিসেবে ছিলেন, তিনিও করোনাভাইরাস নিয়ে চীন সরকারের বিরুদ্ধে ফেডারেল মামলা দায়ের করেছেন। তিনি বলেন, যে কর্মকর্তারা এই ভাইরাস সম্পর্কে সম্পূর্ণভাবে তথ্য গোপন করেছেন এবং এর জন্য মার্কিন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা কোটি কোটি ডলার ক্ষতিপূরণ পাবে।

পাঁচটি ল ভেগাস ব্যবসায়ীর তরফ করা এই মামলা দাবী করেছে,  “চীন সরকারের এই ভাইরাস সম্পর্কে আরও তথ্য পেশ করা উচিত ছিল। কিন্তু তা না করে উপরন্তু তাঁরা ডাক্তার, বিজ্ঞানী, সাংবাদিক এবং আইনজীবিদের ভয় দেখিয়ে (কভিড-১৯)শ্বাসযন্ত্রের মাধ্যমে রোগ বিস্তার করার অনুমতি দিয়েছে”, অ্যাটর্নি রবার্ট এগলেট সাংবাদিকদের জানান। তিনি আরও বলেন, “তারা মিথ্যা, ভুল তথ্য, তথ্য লোকানো এবং প্রমাণ নষ্ট করার সাথে জড়িত”।

ক্লেম্যান সহ বাকিঅভিযোক্তারা অভিযোগ করেছেন যে সমস্ত চীনা চিকিৎসক এবং গবেষকরা যারা করোনভাইরাস সম্পর্কে মতামত দিয়েছিলেন এবং একইসঙ্গে গোটা বিশ্বকে ‘বিপদের ঘণ্টা বাজিয়ে জানান দিতে চেয়েছিলেন’ তাদের এখন চুপ করিয়ে রাখা হয়েছে। এর সঙ্গে তাঁরা আরও যোগ করে বলেছেন, “মেজর জেনারেল চিনের এই ভাইরাস থেকে নিজেকে বাঁচানোর জন্য এতোটাই বেপরোয়া হয়ে উঠেছিলেন যে তিনি নিজেকে এবং তাঁর দলের ছয় সদস্যকে সম্ভাব্য একটি ভ্যাকসিন ইনজেক্ট করেছিলেন যা এখনও পরীক্ষা করা হয়নি”।

এখনো অবধি আমেরিকান অভিযোক্তারা চাইনিজ আসামীদের বিরুদ্ধে বিচারের জন্য নির্ণায়ক-সভার আবেদন জানিয়েছেন।

ঋনঃ US News, Business daily & NDTV

Summary
Article Name
করোনা-ভাইরাসঃ চিনের বিরুদ্ধে ২০ ট্রিলিয়ন ডলারের অধিক ধার্য করে মামলা দায়ের করল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
Description
ক্লেম্যান সহ বাকিঅভিযোক্তারা অভিযোগ করেছেন যে সমস্ত চীনা চিকিৎসক এবং গবেষকরা যারা করোনভাইরাস সম্পর্কে মতামত দিয়েছিলেন এবং একইসঙ্গে গোটা বিশ্বকে ‘বিপদের ঘণ্টা বাজিয়ে জানান দিতে চেয়েছিলেন’ তাদের এখন চুপ করিয়ে রাখা হয়েছে।
Publisher Name
THE POLICY TIMES
Publisher Logo