অমিক্রন সংক্রমণ বাড়তি- স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা

ক সপ্তাহে রোগী বেড়েছে ২৩ শতাংশ প্রায় বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের নতুন ধরণ অমিক্রন আক্রান্ত আর তিন জন রোগী সনাক্ত হয়েছে এই নিয়ো মোট সাত জন আক্রান্ত হলেন।

0
অমিক্রন সংক্রমণ বাড়তি- স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা

করোনার নতুন ধরণ অমিক্রনে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৭। এক সপ্তাহে রোগী বেড়েছে ২৩ শতাংশ প্রায় বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের নতুন ধরণ অমিক্রন আক্রান্ত আর তিন জন রোগী সনাক্ত হয়েছে এই নিয়ো মোট সাত জন আক্রান্ত হলেন।

গত সেপ্টেম্বর মাঝামাঝি সময় থেকে দেশে সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।তবে কিছু দিন ধরে সংক্রমণ কিছুটা বাড়তি। জনস্বাস্থ্যবিদেরা বলছে করোনার এই নয়া ধরণ জনগোষ্ঠীর মধ্য ছড়াতে শুরু করেছে কিনা তা বুঝতে আরো কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে। এই পরিস্থিতি তে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর পদক্ষেপ নিয়েছে এবং তা বাস্তবায়নের অনুরোধ জানিয়েছেন।

দক্সিণ অফ্রিকার নতুন ধরণ অমিক্রন ঠেকাতে পদক্ষেপ সমূহ ঃ

১. দক্ষিণ আফ্রিকা, নামিবিয়া, জিম্বাবুয়ে, বতসোয়ানা, এসওয়াতিনি, লেসোথো ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কর্তৃক সময় সময় ঘোষিত অন্যান্য আক্রান্ত দেশ থেকে আসা যাত্রীদের বন্দরসমূহে স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও স্ক্রিনিং জোরদার করতে হবে।

২. সব ধরনের (সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় ও অন্যান্য) জনসমাগম নিরুৎসাহিত করতে হবে।

৩. প্রয়োজনে বাড়ির বাইরে গেলে প্রত্যেক ব্যক্তিকে সর্বদা সঠিকভাবে নাক-মুখ ঢেকে মাস্ক পরাসহ সব স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা নিশ্চিত করতে হবে।

৪. রেস্তোরাঁয় বসে খাওয়ার ব্যবস্থা ধারণক্ষমতার অর্ধেক বা তার কম করতে হবে।

৫. সব জনসমাবেশ, পর্যটন স্থান, বিনোদনকেন্দ্র, রিসোর্ট, কমিউনিটি সেন্টার, সিনেমা হল বা থিয়েটার হল ও সামাজিক অনুষ্ঠানে (বিয়ে, বৌভাত, জন্মদিন, পিকনিক, পার্টি ইত্যাদি) ধারণক্ষমতার অর্ধেক বা তার কমসংখ্যক লোক অংশগ্রহণ করতে পারবে।

৬. মসজিদসহ সব উপাসনালয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা নিশ্চিত করতে হবে।

৭. গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে হবে।

৮. আক্রান্ত দেশসমূহ থেকে আসা যাত্রীদের ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে হবে।

৯. সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান (মাদরাসা, প্রাক-প্রাথমিক, প্রাথমিক, মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক, বিশ্ববিদ্যালয়) ও কোচিং সেন্টারে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে হবে।

১০. সব স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানে সেবা গ্রহীতা, সেবা প্রদানকারী ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সর্বদা সঠিকভাবে নাক-মুখ ঢেকে মাস্ক পরাসহ সব স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা নিশ্চিত করতে হবে।

১১. স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভ্যাকসিন কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে।

১২. করোনা উপসর্গ বা লক্ষণযুক্ত সন্দেহজনক ও নিশ্চিত করোনা রোগীর আইসোলেশন ও করোনা পজিটিভ রোগীর ঘনিষ্ঠ সংস্পর্শে আসা অন্যদের কোয়ারেন্টাইনের ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে।

১৩. কোডিড-১৯ এর লক্ষণযুক্ত ব্যক্তিকে আইসোলেশনে রাখা এবং তার নমুনা পরীক্ষার জন্য স্থানীয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমন্বয়ের মাধ্যমে সহায়তা করা যেতে পারে।

১৪. অফিসে প্রবেশ এবং অবস্থানকালে বাধ্যতামূলকভাবে নাক-মুখ ঢেকে মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা দাপ্তরিকভাবে নিশ্চিত করতে হবে।

১৫. কোডিড-১৯ রোগ নিয়ন্ত্রণ ও হ্রাস করার নিমিত্তে কমিউনিটি পর্যায়ে মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার সচেতনতা তৈরির জন্য মাইকিং ও প্রচারণা চালানো যেতে পারে। এ ক্ষেত্রে প্রয়োজনে মসজিদ, মন্দির, গির্জা ও প্যাগোডার মাইক ব্যবহার করা যেতে পারে এবং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যসহ নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের সম্পৃক্ত করা যেতে পারে।

Summary
Article Name
অমিক্রন সংক্রমণ বাড়তি- স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা
Description
ক সপ্তাহে রোগী বেড়েছে ২৩ শতাংশ প্রায় বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের নতুন ধরণ অমিক্রন আক্রান্ত আর তিন জন রোগী সনাক্ত হয়েছে এই নিয়ো মোট সাত জন আক্রান্ত হলেন।
Author
Publisher Name
THE POLICY TIMES
Publisher Logo