বিধিনিষেধ শিথিলতার মধ্যেই ৩০শে জুন পর্যন্ত লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানোর সিধান্ত নিল পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য মন্ত্রিসভা

এক সপ্তাহ বাদে প্রায় ৭৭ দিন পর আনলক-১ পর্বে খুলছে হোটেল, শপিং মল,রেস্টুরেন্ট এবং সরকারি-বেসরকারি অফিস। গতকাল মন্ত্রীসভার বৈঠকে লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধি করে ৩০ জুন পর্যন্ত লকডাউন চলবে বলে জানানো হয়।

0

সোমবার থেকে প্রায় স্বাভাবিক ছন্দে ফিরে পেয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগে জুন মাসের প্রথম থেকেই জীবন-জীবিকা দ্রুত স্বাভাবিক হচ্ছে। ১ লা জুন থেকেই কন্টেন্ইনমেন্ট জোন বাদে ধর্মীয় স্থান,  ক্ষুদ্র- বৃহৎ শিল্প, দোকান, বাজার, চা, জুট মিলে কাজকর্ম শুরু হয়েছে। এক সপ্তাহ বাদে প্রায় ৭৭ দিন পর আনলক-১ পর্বে খুলছে হোটেল, শপিং মল,রেস্টুরেন্ট এবং সরকারি-বেসরকারি অফিস।

করোনার সংক্রমণ এখনো রোধ করা যায়নি। পাল্লা দিয়ে বেড়ে চলেছে রাজ্যের বেশ কিছু জায়গায় কনটেইনমেন্ট জোন। এরইমধ্যে আনলক-১ পর্বে  রাজ্যকে সম্পূর্ণ স্বাভাবিক করে তুলতে উদ্যোগী রাজ্য সরকার। তবে প্রতিটি ক্ষেত্রে বিভিন্ন রীতিনীতি সাবধানতা অবলম্বন করার ব্যাপারে কড়া নির্দেশিকা জারি করেছেন মুখ্য সচিব। নির্দেশে অবশ্যই নিয়মিত জীবাণুনাশক ব্যবহার, মাস্ক ব্যবহার, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার ওপরে জোর দেওয়া হয়েছে। উপযুক্ত সাবধানতার ক্ষেত্রে পুলিশের নজরদারি প্রয়োজন এবং সর্বোপরি ব্যক্তি সচেতনতার দাবি জানানো হয়েছে।


গত দু’মাসে রাজ্যের আর্থিক অবস্থা শোচনীয়। রাজ্যকে ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য স্বাভাবিক ছন্দে ফিরে যাওয়া খুবই প্রয়োজন। তাই ৮ জুন থেকে প্রথম ধাপে নবান্নের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রতিটি রেস্তোরাঁ, শপিংমল, হোটেল খুলে যাচ্ছে। পুরোদমে চলবে সরকারি-বেসরকারি অফিসও। আগামী বুধবার অর্থাৎ ১০ জুন থেকে শুরু হবে শুটিং এর কাজ। তবে এখনো লোকাল ট্রেন পরিষেবা চালু করার কথা বলা হয়নি। কার্যত দূর-দূরান্তের কর্মীদের ক্ষেত্রে যথেষ্ট অসুবিধাজনক। কলকাতা মেডিকেল কলেজের যাবতীয় আউটডোর পরিষেবা সোমবার সকাল থেকেই শুরু হচ্ছে। রোগীদের ভর্তি করা হবে আউটডোর থেকেই। তবে করোনা ছাড়া সাধারণ রোগীদের জন্য এমারজেন্সি পরিষেবা এখন বন্ধ থাকছে বলে জানানো হয়েছে। সরকারি নিয়ম মেনে খোলা হচ্ছে সমস্ত পর্যটন ক্ষেত্র। পুরোদমে চলবে হোটেল এবং রেস্তোরাঁর কাজকর্ম।

জুন মাসের প্রথম থেকে কোলকাতার রাস্তায় বাস নামলেও পরিষেবা পুরোপুরি স্বাভাবিক হয়নি। সাধারণের তুলনায় বাসের সংখ্যা কম। সরকারি বাস পরিষেবা সচল থাকলেও বেসরকারি বাসের ঘাটতি রয়েছে,  স্বাভাবিকভাবেই অফিসে সময়ে হাজিরার ব্যাপারে যাত্রীদের কপালে ভাঁজ পড়েছে । যদিও মুখ্যমন্ত্রী এ বিষয়ে ছাড় দিয়েছেন। করোনার জেরে দীর্ঘ লকডাউনের পর আনলক ১ পর্বে জুন মাসের প্রথম সপ্তাহে যাত্রীদের বাস পরিষেবা পাওয়ার জন্য দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হচ্ছিল । গতকাল থেকে কলকাতা এবং পাশাপাশি এলাকায় আরো কিছু চলাচল করবে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। যাবতীয় সমস্যার ব্যাপারে কাল বিকেলে নবান্ন সভাঘরে রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠক বসেছে । বৈঠকে ফের লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধি করে ৩০ জুন পর্যন্ত লকডাউন চলবে বলে জানানো হয়। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরও জানিয়েছেন, আগামী ১০ জুন পর্যন্ত ভিন রাজ্য থেকে আরও অনেক ট্রেনে সব মিলিয়ে ১১ লক্ষেরও বেশি লোক ঢুকে যাবে বাইরে থেকে তাই অতিরিক্ত সতর্কতা প্রয়োজন।

Summary
Article Name
বিধিনিষেধ শিথিলতার মধ্যেই ৩০শে জুন পর্যন্ত লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানোর সিধান্ত নিল পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য মন্ত্রিসভা
Description
এক সপ্তাহ বাদে প্রায় ৭৭ দিন পর আনলক-১ পর্বে খুলছে হোটেল, শপিং মল,রেস্টুরেন্ট এবং সরকারি-বেসরকারি অফিস। গতকাল মন্ত্রীসভার বৈঠকে লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধি করে ৩০ জুন পর্যন্ত লকডাউন চলবে বলে জানানো হয়।
Author
Publisher Name
THE POLICY TIMES
Publisher Logo